করোনার টিকা নিয়ে ‘অনিয়মের কারনে’ পদত্যাগ করেছেন রাশিয়ার এক স্বাস্থ্য কর্মকর্তা:

Sports আজকের খবর
dailyekattorbangla.com
dailyekattorbangla.com

রুশের তৈরি করোনার ভ্যাকসিন তৈরিতে চিকিৎসা বিজ্ঞানের নৈতিকতার ‘গুরুতর অনিয়ম’ হওয়ার অভিযোগ এনে এক শীর্ষ চিকিৎসা কর্মকর্তা গতকাল পদত্যাগ করেছেন ‘অধ্যাপক আলেক্সান্ডার চুচালিন’। তাই দেশটির স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের নৈতিকতাবিষয়ক পরিষদ থেকেও পদত্যাগ করেছেন। এবং শুধু পদত্যাগ করেই ক্ষান্ত হননি স্বাস্থ্যতন্ত্রের এই চিকিৎসক, রুশের তৈরি‘স্পুটনিক-৫’ তৈরি নিয়েও গুরুতর কিছু অনিয়মের কথা জানিয়েছেন। এই খবর বিজনেস টুডে ও টাইমস নাউ নিউজ ডট কমে প্রকাশ করা হয়।

রুশের চিকিৎসাবিষয়ক যাবতীয় সব নীতি নির্ধারণ করে দেশটির স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের অধীনে থাকা এই ‘এথিকস কাউন্সিল বা নৈতিকতাবিষয়ক পরিষদ’। তিনি এই পরিষদের অন্যতম একজন সদস্য ছিলেন।

রাশিয়ার প্রধানমন্ত্রি পুতিন গত মঙ্গলবার বলেন, তাঁর দেশই প্রথম করোনার ভ্যাকসিন তৈরি করেছে। পুতিন করোনার টিকা সম্পর্কে আরও বলেন, রাশিয়া যে টিকা তৈরি করেছে, তা এখন স্থায়ী বা টেকসই প্রতিরোধী সক্ষমতা দেখাতে সক্ষম হবে। এএফপি জানায়, রাশিয়ায় মন্ত্রীদের সঙ্গে ভিডিও সম্মেলনেও পুতিন টিকার তথ্য জানিয়েছেন। এবং এই ভিডিও সম্মেলন টেলিভিশনেও সরাসরি সম্প্রচার করা হয়েছিল।

 

কিন্তু রাশিয়ার দাবি করা এই ভ্যাকসিন নিয়ে পশ্চিমা বিশেষজ্ঞসহ অনেকেই অনেক সন্দেহ পোষণ করেছেন। একটি গ্রহণযোগ্য টিকা তৈরিতে যেসবগুলো ধাপ অতিক্রম করতে হয়, এর অনেক কিছুই করা হয়নি বলে সমালোচনা শুরু হয়। আমেরিকার শীর্ষ সংক্রামক রোগ বিশেষজ্ঞ ‘অ্যান্টনি ফাউসি’ রুশের টিকা কতটা নিরাপদ ও কার্যকর হতে পারে, তা নিয়ে বিমত প্রকাশ করেছেন

 

এখন রাশিয়ার ভেতর থেকেই অভিযোগ উঠল। ‘অধ্যাপক আলেক্সান্ডার চুচালিন’ সুনির্দিষ্টভাবে টিকা তৈরিতে যুক্ত দুই বিশেষজ্ঞের নাম উল্লেখ করে তাদের বিরুদ্ধে সরাসরি অভিযোগ করেছেন। এই ভ্যাকসিন তৈরি করেছে মস্কোর গ্যামালিয়া রিসার্চ সেন্টার। এই সংস্থার পরিচালক স্যার ‘আলেক্সান্ডার গিন্টসবার্গ’ এবং দেশের ভাইরোলজি বিশেষজ্ঞদের অন্যতম সের্গেই বরিসেভিচের নাম করে চুচালিন বলেছেন, এই দুই চিকিৎসক ভ্যাকসিন তৈরিতে তাড়াহুড়ো করতে গিয়ে চিকিৎসা বিজ্ঞানের কোন নিয়মনীতির তোয়াক্কা করেনি।

চুচালিন ওই দুই বিশেষজ্ঞের উদ্দেশে আরও বলেন, ‘রাশিয়ার সরকারের সব নিয়মনীতি কি আপনারা মেনেছেন? আন্তর্জাতিক বিজ্ঞানী সম্প্রদায়ের মতামত নিয়েছেন? নেন নি।’

চুচালিন আরও বলেন, এটা ঠিকভাবে করা হয়নি। নৈতিক ভাবে চিকিৎসা বিজ্ঞানের নীতি ভঙ্গ করা হয়েছে।

অধ্যাপক চুচালিন বলেন ‘আমাদের কিছু বিজ্ঞানী যে অবস্থান নিয়েছেন এবং যেভাবে এই রেডিমেড ভ্যাকসিন নিয়ে দায়িত্বজ্ঞানহীনের মতো মন্তব্য করছেন, তাতে আমি খুবই হতাশ।’

পদত্যাগের কিছু আগে রুশের বিজ্ঞান সাময়িকী নওকা আই জিনে (স্যায়েন্স অ্যান্ড লাইফ) দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে চুচালিন বলেছেন, কোনো টিকা বা ওষুধের বিষয়ে আমরা নৈতিকতার পর্যবেক্ষণ যারা করি, তারা প্রথমে দেখা চেষ্টা করি এটা মানুষের জন্য কতটা নিরাপদ। নিরাপত্তাই প্রথম বিচার্য বিষয়। এটা কেমন করে নির্ধারণ করা হবে। যেই সব টিকা এখন তৈরি করা হয়েছে, সেগুলো তো মানুষের ওপর প্রয়োগ করা এখনও হয়নি। মানুষ এটাতে কতটুকু নিতে পারবে, তা তো আমরা সঠিক বলতে পারি না।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *